১১ ডিসেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জো বাইডেনকে ‘পাগলা কুকুর’ বলল উ. কোরিয়া

 জো বাইডেনকে ‘পাগলা কুকুর’ বলল উ. কোরিয়া

অনলাইন ডেস্ক ॥ শীর্ষ নেতা কিম জং উনকে ‘অপমানের পাল্টায়’ মার্কিন সাবেক ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ‘পাগলা কুকুর’ অ্যাখ্যা দিয়েছে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কেসিএনএ।

২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলের মনোনয়নপ্রত্যাশীদের মধ্যে জনমত জরিপে এগিয়ে থাকা বাইডেনকে ‘ঠাণ্ডা করা দরকার’ বলেও মন্তব্য করেছে তারা।

‘কিমের অপমানের’ প্রতিক্রিয়ায় শুক্রবার উত্তর কোরিয়ার বার্তা সংস্থা কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি (কেসিএনএ) এ প্রতিক্রিয়া দেখায় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

পাল্টা ব্যক্তি আক্রমণ করলেও বাইডেনের কোন কথায় উত্তরের শীর্ষ নেতা অপমানিত হয়েছেন, কেসিএনএ তা উল্লেখ করেনি।

আগামী বছরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেট দলের এ মনোনয়নপ্রত্যাশী অবশ্য অনেক দিন ধরেই ডোনাল্ড ট্রাম্পের কোরীয় নীতির কঠোর সমালোচক; বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট একটি ‘খুনি স্বৈরশাসককে’ প্রশ্রয় দিচ্ছেন বলেও অভিযোগ করে আসছেন তিনি।

বাইডেন টানা ৩৬ বছর দেলাওয়ারার সিনেটর ছিলেন। বারাক ওবামার দুই মেয়াদেই তিনি ভাইস প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করেন।

ডেমোক্রেট এ নেতা ‘উন্মত্ততার চূড়ান্ত পর্যায়ে’ রয়েছেন, তার ‘দেহত্যাগের সময় এসে গেছে’ বলে মন্তব্য করেছে কেসিএনএ।

উত্তর কোরিয়ার এ রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম বাইডেনের নাম ভুলভাবে উচ্চারণও করেছে বলে জানিয়েছে রয়টার্স।

“ডিপিআরকের সর্বোচ্চ নেতার মর্যাদাকে কুৎসিতভাবে অপমান করার দুঃসাহস দেখিয়েছে এই লোক। মৃত্যুর অপেক্ষায় থাকা পাগলা কুকুরের এটাই শেষ চেষ্টা,” উত্তর কোরিয়ার আনুষ্ঠানিক নাম ডেমোক্রেটিক পিপলস রিপাবলিক অব কোরিয়ার (ডিপিআরকে) সংক্ষিপ্ত রূপ ব্যবহার করে বলেছে কেসিএনএ।

“জলাতঙ্কে আক্রান্ত পাগলা কুকুরগুলোকে না থামালে তারা অনেককে আঘাত করতে পারে। দেরি হয়ে যাওয়ার আগেই ওই কুকুরগুলোকে অবশ্যই লাঠি দিয়ে পিটিয়ে মেরে ফেলা উচিত,” বলেছে তারা।

বাইডেনকে তুলোধুনা করলেও উত্তর কোরিয়ার এ রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম শত্রুতা ভুলে দুই দেশকে কাছাকাছি আনার পেছনে ট্রাম্প ও কিমের ‘ঘনিষ্ঠ ব্যক্তিগত সম্পর্ককে’ কৃতিত্ব দিয়েছে।

কিমের সমালোচনা করায় চলতি বছরের মে-তেও উত্তর কোরিয়া বাইডেনকে ‘আহাম্মক’ অ্যাখ্যা দিয়েছিল।

নির্বাচিত সংবাদ