১০ ডিসেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নান্দাইলে পেঁয়াজের আড়তে আকস্মিক ইউএনও

নান্দাইলে পেঁয়াজের আড়তে আকস্মিক ইউএনও

সংবাদদাতা, নান্দাইল ॥ সারাদেশে পেঁয়াজের বাজার লাগামহীন। বাজারে পেঁয়াজের কেজি যখন ২৫০ টাকায় ঠেকেছে তখন বাজার নিয়ন্ত্রনের জন্য মাঠে নেমেছে নান্দাইলের উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আব্দুর রহিম সুজন। আজ সোমবার তিনি উপজেলার নান্দাইল চৌরাস্তা পেঁয়াজের আড়তে আকস্মিক পরিদর্শন করেছেন। ইউএনও’র আকস্মিক এই পরিদর্শনে খবরে মুহুর্তেই পেয়াঁজের দাম ৪৫ টাকা কমে এলেও কিছু সময় পর তা আবার বেড়ে যায়। অপরদিকে নান্দাইল পৌর বাজারে ওসির অভিযানের পর ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ বিক্রি কমিয়ে দিয়েছেন।

জানা গেছে, নান্দাইল চৌরাস্তা পেঁয়াজের আড়ত থেকে আশপাশের উপজেলা সহ নান্দাইলের বাজারগুলোতে পেঁয়াজ সরবরাহ করা হয়। প্রতিদিন বেশ কয়েকটি ট্রাক ভর্তি পেঁয়াজ এই আড়তে ঢুকে। গত কয়েক দিন ধরে এই আড়তে ২০০ থেকে ২২০ টাকা ধরে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছিল। খবর পেয়ে ইউএনও চৌরাস্তা আড়ত সহ কাচাঁবাজার পরিদর্শন করেন। ইউএনওর উপস্থিতি টের পেয়ে দাম কমিয়ে খুচরা বাজারে প্রতি কেজি দেশী পেয়াঁজ ১৭৫ ও এলসি পেয়াঁজ প্রতি কেজি ১৫০ টাকা বিক্রী শুরু করে। এসময় ইউএনও আড়তে পেঁয়াজের সঠিক মূল্য রাখা সহ মূল্য তালিকার বোর্ড টানানোর জন্য নির্দেশ দেন।

অপরদিকে রবিবার নান্দাইল পৌর বাজারে পেঁয়াজ মহালে সাড়াশি অভিযান চালায় নান্দাইল থানার ওসি মনসুর আহাম্মদ। এসময় ওসির কাছে ব্যবসায়ী ৮০ টাকা থেকে ১১০ টাকা কেজি ধরে পেঁয়াজ বিক্রি করবেন বলে কথা দেন। কিন্তু পরদিন সোমবার ওই বাজারে গিয়ে বেশির ভাগ দোকানে পেঁয়াজ পাওয়া যায়নি। এসময় ব্যবসায়ীরা জানায়, প্রশাসনের পক্ষ থেকে বাজার মনিটরিং করে গেছে। বেশি দামে পেঁয়াজ বিক্রি করলে জেল জরিমানা হবে। আর আড়তে কম মূল্যে পেঁয়াজ পাওয়া যায় না। তাই পেঁয়াজ বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছেন।

নির্বাচিত সংবাদ