১৬ ডিসেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট ২৩ ঘন্টা পূর্বে    
ADS

জেলা প্রশাসক প্রতিশ্রুত ঘর পেলেন ইজিবাইকে রাতদিন কাটানো সেই মাওয়া

জেলা প্রশাসক প্রতিশ্রুত ঘর  পেলেন ইজিবাইকে রাতদিন  কাটানো সেই মাওয়া

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর ॥ অবশেষে জেলা প্রশাসক প্রতিশ্রুত ঘর পেয়েছে ‘ইজিবাইকে বাবার সাথে দিনরাত কাটানো জান্নাতুল মাওয়া। সোমবার বিকেলে যশোরের জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ তাদের হাতে বাড়ির চাবি হস্তান্তর করেন। যশোরের বিদায়ী জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল তাদেরকে জমিসহ একটি ঘর দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে প্রক্রিয়া শুরু করেছিলেন।

যশোর সদর উপজেলার আরবপুর ইউনিয়নের মন্ডলগাতী গ্রামে জান্নাতুল মাওয়ার বাবা মুরাদুর রহমান মুন্নার নামে বরাদ্দ ৫ শতক খাস জমির উপর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের অর্থায়নে এক লাখ টাকা ব্যয়ে টিনশেডের এ ঘর তৈরী করে দেয়া হয়। এই ঘর পেয়ে দারুণ খুশি মাওয়া ও তার বাবা।

ঘরের চাবি দেয়ার পর জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ মা হারা জান্নাতুলের দিকে এলাকাবাসির সুদৃষ্টি কামনা করেন। পাশাপাশি তার খোঁজখবর রাখতে সবার প্রতি অনুরোধ জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন, যশোর সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ ইব্রাহীম। প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ফিরোজ আহমেদ প্রমুখ। প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয়ের উপ-সহকারী প্রকৌশলী এবিএম ফারুক প্রমুখ।

এদিকে, ঘর পেয়ে খুশিতে আত্মহারা জান্নাতুল মাওয়া ও তার বাবা। ঘর পাওয়া মাওয়ার বাবা মুরাদুর রহমান মুন্না বলেন, ঘর পাওয়ায় খুব আনন্দ হচ্ছে। শিশু মাওয়াকে নিয়ে ইজি বাইকে বাইকে দিনভর ঘোরার দিন শেষ হলো। আর এই এলাকার সকল প্রতিবেশির সাথে সব সময় ভালো সম্পর্ক বজায় রাখবো। পাশাপাশি খুশি এলাকাবাসীও। এলাকাবাসী কার্তিক চন্দ্র পাল বলেন, মা হারা মেয়ে আমাদের এলাকায় সরকারের ঘর পেয়েছে এতে আমরা খুশি। আমরা অবশ্যই শিশুটির ভালোমন্দ সব বিষয়ে খবর রাখবো।

প্রসঙ্গত, জান্নাতুল মাওয়াকে বাবা মুরাদের কাছে রেখেই তার মা তাদের ছেড়ে চলে যায়। এরপর মাওয়াকে পাশে বসিয়ে দিনভর ইজিবাইক চালান তার বাবা। ফেসবুকে এই ছবি প্রকাশিত হলে গত ফেব্রুয়ারি মাসে তাদের ডেকে নেন তৎকালীন জেলা প্রশাসক আব্দুল আওয়াল। তিনি ¯েœহের পরশ দিয়ে তাদের জন্য ঘর তৈরি করে দেয়ার উদ্যোগ নেন। এরপর সোমবার বিকেলে যশোরের বর্তমান জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শফিউল আরিফ সেই ঘর হস্তান্তর করলেন।