১৫ ডিসেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আস্তানায় ‘বন্দী’ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

আস্তানায় ‘বন্দী’ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

অনলাইন ডেস্ক ॥ প্রিমিয়ার লিগে যেমন তেমন, উয়েফা ইউরোপে লিগে অন্তত অপ্রতিরোধ্য ছিলো ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। কিন্তু তাদের এই যাত্রা থেমে গেলো পঞ্চম ম্যাচে এসে। কাজাখাস্তানের ক্লাব আস্তানার সামনে নাস্তানাবুদ হয়েছে ইতিহাসের অন্যতম সেরা ক্লাবটি।

অবশ্য এই পরাজয়ে আস্তানার কৃতিত্বের চেয়ে ম্যান ইউর ব্যর্থতাই বেশি বলা চলে। কেননা ম্যাচের প্রথম গোল করেছিল তারাই। কিন্তু এরপর গোল হজম ও আত্মঘাতী গোল করে নিজেরাই বন্দী হয়েছে আস্তানায়, ম্যাচ হেরে গেছে ২-১ গোলে।

আস্তানার মাঠে গিয়ে স্বাভাবিকভাবেই নিজের আধিপত্য বজায় রেখে খেলতে ম্যান ইউ। পুরো ম্যাচের সকল পরিসংখ্যানও ছিলো তাদেরই পক্ষে। ম্যাচের ৬৬ শতাংশ সময় বল রেখেছিল নিজেদের দখলে, আস্তানার রক্ষণে হানা দিয়েছিল ২০ বার। কিন্তু লক্ষ্যভেদ হয়েছে মাত্র ১ বার।

ম্যাচের ১০ মিনিটের মাথায় বাম পাশ থেকে দারুণ কাট করে হেসে লিনগার্ডের উদ্দেশ্যে বল বাড়িয়ে দেন লুক শ। আশপাশে কোনো ডিফেন্ডার না থাকায় বল ধরে আস্তে আস্তে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন লিনগার্ড। এরপর নিচু শটে বল জালে জড়িয়ে দলকে এগিয়ে দেন তিনি।

প্রথমার্ধে আর কোনও গোল হয়নি। দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ৫৫ মিনিটের মাথায় গোল শোধ করে আস্তানা। ম্যান ইউর আলগা রক্ষণের সুযোগ নিয়ে দলকে সমতায় ফেরান আস্তানার ডিফেন্ডার দিমিত্রি শোমকো।

এর মিনিট সাতেক পর ম্যাচের সবচেয়ে বড় ভুলটা করে বসেন ম্যান ইউ ডিফেন্ডার ডাই শন বার্নার্ড। আস্তানার ডিফেন্ডার রুকাভিনার জোরালো শট বার্নার্ডের গায়ে লেগে দিল বদলে জড়িয়ে যায় জালে। এ গোলের সুবাদেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে আস্তানা।

অবশ্য হেরে গেলেও ‘এল’ গ্রুপের শীর্ষেই রয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। পাঁচ ম্যাচে ৩ জয় ও ১ ড্রতে ১০ পয়েন্ট তাদের। অন্যদিকে পঞ্চম ম্যাচে এসে প্রথম জয় পাওয়া আস্তানা ৩ পয়েন্ট নিতে অবস্থান করছে তলানিতে।