০৯ ডিসেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভ্রমণকন্যারা সারা বিশ্বের রূপসী বাংলাকে তুলে ধরছে : শিক্ষামন্ত্রী

ভ্রমণকন্যারা  সারা বিশ্বের রূপসী বাংলাকে তুলে ধরছে : শিক্ষামন্ত্রী

অনলাইন রিপোর্টার ॥ ভ্রমণ সংস্থা ‘ভ্রমণকন্যা’র নারীরা বাংলাদেশের অন্য নারীদের জন্য অনুপ্রেরণা। রাষ্ট্রের পাশাপাশি এই মেয়েরাও সমাজের দেয়াল ভাঙ্গার চেষ্টা করছে। এই নারীরা নারী সমাজের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে।

রবিবার শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে ‘ট্রাভেল অ্যান্ড ট্রাভেলেটস ফটোগ্রাফি এক্সিবিশন সিজন থ্রি ’র সমাপনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি একথা বলেন। ট্রাভেলেটস অব বাংলাদেশ- ভ্রমণকন্যার তৃতীয় বর্ষপূর্তি উদযাপন উপলক্ষে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।

দীপু মনি বলেন, নারীদের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে আমরা কাজ করছি। কিন্তু ভ্রমণকন্যারা যেভাবে করছে সেভাবে হয়তো আমরা পারছি না। স্কুটি চালিয়ে স্কুলে স্কুলে গিয়ে তারা শিক্ষার্থীদের সচেতন করছে। এতে সরকারের কাজটা অনেক সহজ হয়ে গেছে। ‘এখন বাইরে যেও না’, ‘তুমি মেয়ে মানুষ তুমি এটা করো না’- এ ধরনের ‘না’ শব্দ শুনতে শুনতে ‘না’তেই অভ্যস্ত হয়ে পড়েছে আমাদের মেয়েরা। আর ‘না’কে ‘হ্যাঁ’ বলানোর জন্যই কাজ করছে ভ্রমণকন্যারা।’

তিনি বলেন, নিজেদের তোলা ছবির মধ্য দিয়ে ভ্রমণকন্যারা সারা বিশ্বের কাছে আমাদের রূপসী বাংলাকে তুলে ধরছে। এমন একটি ভালো কাজের জন্য তারা অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার। তাদের কাজ আমাকে মুগ্ধ করেছে। অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জালাল আহমেদ, উন্মাদ সম্পাদক ও কার্টুনিস্ট আহসান হাবীব, বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ইনাম আল হক প্রমুখ।

গত ২৭ নবেম্বর এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। ট্রাভেলেটস অব বাংলাদেশের কর্ণধার ডা. সাকিয়া হক এবং ডা. মানসী সাহা তুলির উদ্যোগে এ আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। এতে ডিএসএলআর ক্যাটাগরি ও মোবাইল ক্যাটাগরিতে ভাগ করে ছবিগুলো প্রদর্শিত হয়।