২৭ জানুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেয়ারবাজারে সূচকের সঙ্গে লেনদেন কমেছে

 শেয়ারবাজারে সূচকের  সঙ্গে লেনদেন কমেছে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সপ্তাহের শেষ কার্যদিবস বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সবকটি মূল্য সূচকের পতন হয়েছে। এর আগে টানা তিন পতনের পর বুধবার সূচক বেড়েছিল। কিন্তু বিনিয়োগকারীদের শেয়ার বিক্রির চাপ বাড়ার কারণে সার্বিক সূচকের এই পতন। সেই সঙ্গে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ।

এদিন ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৩১ পয়েন্ট কমে চার হাজার ৬৭১ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ১১ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৬০৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আর ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ৫ পয়েন্ট কমে এক হাজার ৫৫ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

সূচকের পতনের পাশাপাশি লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম কমেছে। দিনভর ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১০৬ প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে কমেছে ১৯২টির। আর ৪৮টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

দিনভর বাজারে লেনদেন হয়েছে ৪৩২ কোটি ৪১ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৪৬২ কোটি ছয় লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ২৯ কোটি ৬৫ লাখ টাকা।

এদিন ডিএসইতে টাকার পরিমাণে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে এসকে ট্রিমসের শেয়ার। কোম্পানিটির ১৫ কোটি ৯০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা সায়হাম কটনের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১২ কোটি ৪৫ লাখ টাকার। ১১ কোটি ১৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্স।

এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানির মধ্যে রয়েছে- ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যাল, প্যারামাউন্ট ইন্স্যুরেন্স, লাফার্জহোলসিম, ডেফোডিল কম্পিউটার, সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজ, মিরাকেল ইন্ডাস্ট্রিজ এবং বিকন ফার্মাসিউটিক্যাল।

অপরদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৯১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ২০৩ পয়েন্টে। বাজারে লেনদেন হয়েছে ২৫ কোটি ছয় লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেয়া ২৪৯ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৮২টির, কমেছে ১৪১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির

নির্বাচিত সংবাদ