২৪ জানুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দুর্নীতির দায়ে সুদানের সাবেক প্রেসিডেন্ট বশিরের সাজা

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ সুদানের সাবেক প্রেসিডেন্ট ওমর আল বশিরকে দুর্নীতির দায়ে দোষী সাব্যস্ত করে দুই বছর সংশোধনাগারে আটক রাখার আদেশ দিয়েছে দেশটির এক আদালত। সরকারবিরোধী ব্যাপক বিক্ষোভের মুখে ক্ষমতা ছাড়া সাবেক এই প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে শনিবার এ রায় হয়। ক্ষমতা হারানোর পর এই প্রথম একটি অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত হয়ে শাস্তি পেলেন তিনি। খবর ইয়াহু নিউজের।

রায় ঘোষণা করে বিচারক আল সাদিক আবদেল রহমান বলেন, বয়স বিবেচনায় ৭৫ বছর বয়সী বশিরকে কারাগারে না পাঠিয়ে সংশোধনাগারে পাঠানো হয়েছে। ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর বশিরের বাসভবনে পাওয়া লাখ লাখ ইউরো ও সুদানি পাউন্ডও বাজেয়াফত করার আদেশ দেন বিচারক। অবৈধভাবে বিদেশী মুদ্রা রাখাসহ বশিরের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগগুলোতে তার সর্বোচ্চ ১০ বছর কারাদণ্ড হতে পারে। রায় ঘোষণার সময় আরবদের ঐতিহ্যবাহী সাদা আলখাল্লা ও পাগড়ি পরা বশির আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তাকে লোহার একটি খাঁচার ভেতরে রাখা হয়েছিল। এই রায়কে বশির ও তার শাসনামলের ‘রাজনৈতিক ও নৈতিক নিন্দা’ অবহিত করে স্বাগত জানিয়েছে সুদানিজ প্রফেশনাল এ্যাসোসিয়েশন। সাবেক প্রেসিডেন্ট ও তার দোসরদের বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি মামলার মধ্যে মাত্র একটির রায় হয়েছে বলেও উল্লেখ করেছে বশিরের বিরুদ্ধে গণআন্দোলনে নেতৃত্ব দেয়া গোষ্ঠীটি। সুদানের দারফুর অঞ্চলে গণহত্যা, যুদ্ধাপরাধ ও মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতও ২০০৯ ও ২০১০ সালে বশিরের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে।

নির্বাচিত সংবাদ