২৬ জানুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পাঁচ দিন পর শেয়ারবাজারে সূচক বাড়ল

পাঁচ দিন পর শেয়ারবাজারে  সূচক বাড়ল

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ টানা পাঁচ কার্যদিবস বড় দরপতনের পর রবিবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সবকটি মূল্য সূচক বেড়েছে। তবে কমেছে লেনদেনের পরিমাণ। উভয় শেয়ারবাজারেই দর বাড়তে থাকার কারণে বিনিয়োগকারীরা আতঙ্কে শেয়ার বিক্রি থেকে বিরত থেকেছেন। যার কারণে সূচকে ইতিবাচক প্রবণতা থাকার পরও লেনদেন কম হয়েছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সকাল লেনদেন শুরু পর থেকেই সূচকের ইতিবাচক প্রবণতা দেখা দেয়। এক পর্যায়ে সূচক আগের দিনের চেয়ে ৪২ পয়েন্ট বেড়ে যায়। তবে খুলনা পাওয়ার, লাফার্জ সুরমা সিমেন্টের মতো বড় মূলধনী কোম্পানির মুনাফা তোলার চাপের কিছুটা সূচকের বৃদ্ধি ততোটা হয়নি। দিনশেষে ডিএসইর প্রধান মূল্য সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ১৫ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ২১২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ সূচক ৪ পয়েন্ট বেড়ে ৯৫০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। ডিএসই-৩০ আগের দিনের তুলনায় ৯ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৪১৫ পয়েন্টে অবস্থান করছে।

সবকটি সূচকের উত্থানের পাশাপাশি ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। দিনভর বাজারটিতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১৭৯টি প্রতিষ্ঠান শেয়ার ও ইউনিট দাম বেড়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১২২টির। ৫৩টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।

সূচক ও বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার দাম বাড়লেও ডিএসইতে লেনদেনের পরিমাণ কমেছে। দিনভর ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৬০ কোটি ৮২ লাখ টাকা। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ৩০১ কোটি ৪১ লাখ টাকা। সে হিসাবে লেনদেন কমেছে ৪০ কোটি ৫৯ লাখ টাকা।

টাকার অঙ্কে ডিএসইতে সব থেকে বেশি লেনদেন হয়েছে লাফার্জহোলসিম সিমেন্টের শেয়ার। কোম্পানিটির ২৪ কোটি ৭১ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা খুলনা পাওয়ারের শেয়ার লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার। ১৪ কোটি ৩৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেনের মাধ্যমে তৃতীয় স্থানে রয়েছে এডিএন টেলিকম। এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০ কোম্পানির মধ্যে রয়েছে - নর্দান জুট ম্যানুফ্যাকচারিং, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, বিকন ফার্মাসিউটিক্যালস, পাইওনিয়ার ইন্স্যুরেন্স, ন্যাশনল ফিড, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স এবং ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৯ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১২ হাজার ৮০৮ পয়েন্টে। বাজারটিতে লেনদেন হয়েছে ১৫ কোটি ৫৭ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেয়া ২৩৯ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ১১০টির, কমেছে ৯২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির।

নির্বাচিত সংবাদ