২২ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

‘ব্যালন ডি অর রোনালদোর চেয়ে অন্য কারো বেশি দেখাটা বিরক্তিকর’

‘ব্যালন ডি অর রোনালদোর চেয়ে অন্য কারো  বেশি দেখাটা বিরক্তিকর’

অনলাইন ডেস্ক ॥ বর্তমান বিশ্ব ফুটবলে ব্যক্তিগত দ্বৈরথে জড়িয়ে আছে দুইটি নাম। বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল এবং জুভেন্টাসের পর্তুগিজ রাজপুত্র ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। গত প্রায় এক যুগ ধরেই একে-অপরকে ছাড়িয়ে যাওয়ার মিশনে রয়েছেন এ দুজন।

কখনও মেসি তো, আবার কখনও রোনালদো- কেউ কাউকে ছাড়িয়ে যেতে দেন না একদমই। রোনালদোর দারুণ কোনো রেকর্ডের পরপরই দুর্দান্ত এক হ্যাটট্রিক করে বসেন মেসি, আবার প্রতিদ্বন্দ্বীর অসাধারণ কোনো পারফরম্যান্সের রাতে অবিশ্বাস্য কিছু করে আলো কেড়ে নেন রোনালদো।

এভাবেই চলে মেসি-রোনালদোর দ্বৈরথ। বিশেষ করে রোনালদো স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে থাকার সময় প্রতিদ্বন্দ্বিতা হতো জমজমাট। এখন তিনি ইতালিয়ান ক্লাব জুভেন্টাসে যোগ দেয়ায় ঠিক সেভাবে জমে না তাদের দ্বৈরথ। জুভেন্টাসে প্রথম মৌসুমটা সে অর্থে ভালো কাটেনি রোনালদোর।

যার সুবাদে সবশেষ ব্যালন ডি অর জিতে নিয়েছেন স্বাভাবিক পারফরম্যান্স করা মেসি। এখন বার্সেলোনার অধিনায়ক ট্রফি কেবিনেটে রয়েছে ৬টি ব্যালন ডি অর পুরস্কার। অন্যদিকে, রোনালদোর ঝুলিতে রয়েছে ৫টি।

যা কি না মানতেই পারছেন না রোনালদোর বর্তমান কোচ মাউরিসিও সারি। তার মতে অন্য কারো ব্যালন ডি অর রোনালদোর চেয়ে বেশি দেখাটা বিরক্তিকর। তাই এখন জুভেন্টাস কোচ ও তার দলের লক্ষ্য রোনালদোকে ব্যালন ডি অর জিততে সাহায্য করা।

কোপা ইতালিয়ায় শেষ ষোলোর ম্যাচে উদিনেসেকে হারানোর পর সারি বলেন, ‘আমি আগে রোনালদোকে তার ষষ্ঠ ব্যালন ডি অর জিততে সাহায্য করবো। এটা দেখাটা সত্যিই বিরক্তিকর যে, রোনালদোর চেয়ে অন্য কারো ব্যালন ডি অর সংখ্যা বেশি। আমি তার ব্যাপারে ভাবি এবং সাহায্য করতে চাই। এটা (রোনালদোকে ব্যালন ডি অর জেতানো) আমার এবং দলের লক্ষ্য। ব্যালন ডি অর রোনালদোর অধিকার।’

উদিনেসের বিপক্ষে ম্যাচে জোড়া গোলের পাশাপাশি এক এসিস্ট করে দলকে ৪-০ গোলের জয় এনে দিয়েছেন আর্জেন্টাইন তারকা পাওলো দিবালা। তার ব্যাপারেও প্রশংসার ফুলঝুরি ছুটেছে সারির কণ্ঠ থেকে। জুভেন্টাস কোচ আশা করছেন শীঘ্রই ফুটবল বিশ্বে আরও বড় তারকা হয়ে যাবেন দিবালা।