২০ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

১৫ বছরের ক্রিকেটার ভারতের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে

১৫ বছরের ক্রিকেটার ভারতের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে

অনলাইন ডেস্ক ॥ ২০১৯-২০ মৌসুমের জন্য চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়দের তালিকা প্রকাশ করেছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। সম্প্রতি পুরুষ ক্রিকেটের জন্য ঘোষিত ২৭ জনের এ তালিকায় জায়গা হয়নি সাবেক অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনির। যা নিয়েই ছিলো সারাদিনের আলোচনা-সমালোচনা।

একইদিন নারী ক্রিকেটের জন্যও কেন্দ্রীয় চুক্তিবদ্ধ খেলোয়াড়দের তালিকা প্রকাশ করেছে বিসিসিআই। তিন ক্যাটাগরিতে রাখা হয়েছে মোট ২২ জনকে। এখানেও অবনমন ঘটেছে সাবেক অধিনায়কের। মিথালি রাজকে এ ক্যাটাগরি থেকে নামিয়ে দেয়া হয়েছে বি'তে।

তবে মূল চমক অন্য আরেকটি। মাত্র ১৫ বছর বয়সেই জাতীয় দলের কেন্দ্রীয় চুক্তি পেয়ে গেছেন ডানহাতি ব্যাটার শেফালি ভার্মা। এর আগেই ২০২০ সালের নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের স্কোয়াডে জায়গা পেয়েছিলেন শেফালি। সে ধারাবাহিকতায় তাকে বাৎসরিক কেন্দ্রীয় চুক্তিতেও জায়গা দিয়েছে ক্রিকেট বোর্ড।

এরই মধ্যে ৯টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলে ফেলেছেন শেফালি। সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়া এ দলের বিপক্ষে ব্রিসবেনে মাত্র ৭৮ বলে ১৯ চার ও ৪ ছক্কার মারে ১২৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেছেন ১৫ বছর বয়সী এ ব্যাটার। আসন্ন টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও তার প্রতি নজর থাকবে বিশ্ববাসীর।

প্রথমবারের মতো বোর্ডের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে ঢুকে সি ক্যাটাগরিতে জায়গা পেয়েছেন শেফালি। তার মতোই প্রথমবারের মতো কেন্দ্রীয় চুক্তিতে এসেছে প্রিয়া পুনিয়া এবং হারলিন দেওল। তারা পাবেন বাৎসরিক ১০ লাখ রুপি করে।

সর্বোচ্চ এ ক্যাটাগরিতে আছেন তিনজন: হারমানপ্রিত কৌর, স্মৃতি মান্ধানা এবং পুনম যাদভ। তাদের বাৎসরিক আয় হবে ৫০ লাখ রুপি। এছাড়া বি ক্যাটাগরিতে জায়গা পেয়েছেন মিথালি রাজসহ ৮ জন ক্রিকেটার। তারা পাবেন ৩০ লাখ রুপি করে।

ভারতীয় নারী ক্রিকেটারদের কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকা

এ গ্রেড (৫০ লাখ রুপি): হারমানপ্রিত কৌর, স্মৃতি মান্ধানা এবং পুনম যাদভ

বি গ্রেড (৩০ লাখ রুপি): মিথালি রাজ, ঝুলন গোস্বামি, একতা বিশত, রাধা যাদভ, শিখা পান্ডে, দিপ্তি শর্মা, জেমিমাহ রদ্রিগেজ এবং তানিয়া ভাটিয়া।

সি গ্রেড (১০ লাখ রুপি): ভেদা কৃষ্ণামুর্থি, পুনাম রাউত, অনুজা পাতিল, মানসি জোশি, ডি হেমলতা, অরুন্ধতি রেড্ডি, রাজেশ্বরী গায়কোয়ার, পূজা ভাস্ত্রাকার, হারলিন দেওল, প্রিয়া পুনিয়া এবং শেফালি ভার্মা।