২০ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্টোকস-পোপের সেঞ্চুরি ইংল্যান্ডের বড় সংগ্রহ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে প্রথম টেস্টে হেরে শুরুতেই পিছিয়ে পড়েছিল ইংল্যান্ড। দ্বিতীয় ম্যাচে জ্বলে ওঠেন বেন স্টোকস। তার দুরন্ত অলরাউন্ড নৈপুণ্যে দারুণ এক জয়ে ১-১এ সমতায় ফেরে জো রুটের দল। আইসিসি’র বর্ষসেরার খেতাব সঙ্গী করে এবার পরের ম্যাচেই সেঞ্চুরি সুপার স্টোকসের। আউট হওয়ার আগে করেন ১২০ রান। ৬২তম টেস্টে এটি তার নবম সেঞ্চুরি। সঙ্গে ষষ্ঠ টেস্ট খেলতে নেমে প্রথম সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন ওলি পোপ। শুক্রবার দ্বিতীয়দিন চা-বিরতির পর এ রিপোর্ট লেখার সময় ২২ বছর বয়সী তরুণ এই মিডলঅর্ডার ব্যাটসম্যানের নামের পাশে অপরাজিত ১৩৫। ৯ উইকেটে ৪৯৯ রানের বড় স্কোর গড়ে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছে ইংল্যান্ড। ওপেনার জ্যাক ক্রাউলি এবং টেলএন্ডার স্যাম কুরান দু’জনেই সমান ৪৪ রান করে আউট হন। চার ম্যাচের সিরিজ। এগিয়ে যাওয়ার লড়াইয়ে এই টেস্টটা তাই দু’দলের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ।

৪ উইকেটে ২২৪ রান নিয়ে শুক্রবার দ্বিতীয়দিনের খেলা শুরু করে ইংল্যান্ড। জে ডেনলি আর অধিনায়ক রুট আগেরদিনই অল্পতে সাজঘরে ফেরায় চাপ ছিল সফরকারীদের ওপর। দারুণ জুটিতে সেটি অতিক্রম করেন স্টোকস ও পোপ। পঞ্চম উইকেটে তারা দু’জনে যোগ করেন মূল্যবান ২০৩ রান। ড্যান প্যাটারসনের বলে ডিন এলগারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে ১২০ রান করেন স্টোকস। ২৭২ বলের ইনিংসটি তিনি সাজিয়েছেন ১২ চার ও দুটি ছক্কা দিয়ে। আর নর্টজকে চার মেরে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নেন পোপ। ইংল্যান্ডের টেস্ট ইতিহাসে কম বয়সে সেঞ্চুরির তালিকায় জায়গা করে নেন ২২ বছর ১৫ দিন বয়সী মিডলসেক্সে জন্ম নেয়া ডানহাতি এ উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। রঙিন পোশাকের তারকা এবং এই টেস্টের উইকেটরক্ষক জস বাটলার মাত্র ১ রান করে আউট হওয়ার পর সপ্তম উইকেটে স্যাম কুরানের সঙ্গে ৫৯ রান যোগ করেন পোপ। আর নবম উইকেটে মার্ক উডের সঙ্গে ৭১। ২৩ বলে ৪২ রানের ঝড় তুলে ফেরেন মার্ক উড।

দীর্ঘ সাড়ে চার দশকে ইংল্যান্ডের প্রথম বিশ্বকাপ জয়ে লর্ডসের অবিস্মরণীয় সেই ফাইনালের নায়ক স্টোকস মৌসুমজুড়ে দুর্দান্ত পারফর্মেন্স করেন। গত বছর মোট ২০ ওয়ানডে খেলে ৭১৯ রানের পাশাপাশি ১২ উইকেট শিকার করেন স্টোকস। নিউজিল্যান্ড বংশোদ্ভূত ২৮ বছর বয়সী ইংলিশ অলরাউন্ডার গত বছর টেস্ট খেলেন ১১টি। ২২ উইকেটের পাশাপাশি রান করেন ৮২১। বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা, প্যাট কামিন্সদের মতো সুপারস্টারদের পেছনে ফেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি’র ২০১৯ সালের বর্ষসেরা মনোনীত হন বেন স্টোকস। পোর্ট এলিজাবেথে জিতলেই ২-১এ এগিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সিরিজ ড্র করার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে যাবে। সুতরাং দু’দলই এগিয়ে যেতে মরিয়া। সফরকারীরা গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচে পাচ্ছে না জেমস এ্যান্ডারসনকে। পাঁজরের ইনজুরির কারণে সফর শেষ হয়ে গেছে তারকা পেসারের।

১৯৮৯ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত মুখোমুখি ১৫১ টেস্টের ৬২টিতে জিতে এগিয়ে ইংল্যান্ড। প্রোটিয়াদের জয় ৩৪। ড্র ৫৫। সর্বশেষ ২০১৫-২০১৬ মৌসুমে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে ৪ টেস্টের সিরিজ ২-১এ জিতেছিল ইংলিশরা। আর ২০১৭ সালে ইংল্যান্ডে গিয়ে ৩-১এ হেরে এসেছিল প্রোটিয়ারা। র‌্যাঙ্কিংয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা চার, আর ইংল্যান্ড আছে পাঁচ নম্বরে।