২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

একটা গাছ কাটলেও ৩০২ ধারায় মামলা হওয়া উচিত ॥ খাদ্যমন্ত্রী

একটা গাছ কাটলেও ৩০২ ধারায় মামলা হওয়া উচিত ॥  খাদ্যমন্ত্রী

জাবি সংবাদদাতা ॥ একটা গাছ কাটলেও ৩০২ ধারায় মামলা হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ সরকারের খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। আজ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের জহির রায়হান মিলনায়তনের সেমিনার হলে বাংলাদেশ বোটানিক্যাল সোসাইটির আয়োজনে ‘বার্ষিক বোটানিক্যাল সম্মেলন’ এ মন্তব্য করেন তিনি।

তিনি বলেন, “গাছ কাটা ও একজন মানুষকে মার্ডার করা একই কথা। একজন মানুষকে মার্ডার করলে ৩০২ ধারায় মামলা হলে, একটা গাছ কাটলেও ৩০২ ধারায় মামলা হওয়া উচিত। আমার এলাকায় সমিলগুলোকে প্রতিদিন ইউএনও’র মাধ্যমে তত্বাবধান করছি। সমিলগুলো প্রতিদিন একটা চালান করে ইউএনও অফিসে জমা দেয়। যেন কোনো চোরাই গাছ কাটা না পড়ে। এরকম যদি আমরা না করি তবে কোনোভাবেই পরিবেশ রক্ষা করা সম্ভব হবেনা।”

তিনি আরও বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সবসময় চেষ্টা করেন সৎ থেকে কিভাবে দেশকে দুর্নীতিমুক্ত করা যায় এবং দেশের কোথায় কি উন্নয়ন করা যায়। দেশের উন্নয়নের জন্যে তার একার মাথায় যে পরিমাণ চিন্তা, তা আমাদের মতো একহাজার মানুষের পক্ষের সম্ভব না। একসময় দেশে ৭ কোটি মানুষ ছিলো, কিন্তু তখনও আমাদের ভাতের মাড় খেয়ে থাকতে হতো। আজ দেশে ১৭ কোটি মানুষের খাদ্যর স্বয়নসম্পূর্নতার পরও বিদেশে আমরা খাদ্য রপ্তানি করছি।”

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, “প্রকৃতির গুরুত্বপূর্ণ অবদান হলো উদ্ভিদ। এ প্রাকৃতিক সম্পদের বিস্তার লাভের সঙ্গে আমাদের বেঁচে থাকার সম্পর্ক নিবিড়। বিশ্বের অতিস্ত রক্ষাসহ সব মনুষের খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা চিকিৎসা প্রভৃতি মৌলিক চাহিদা মেটাতে আমারা প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে উদ্ভিদজাত দ্রব্যের উপর নির্ভরশীল। ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার চাহিদা পূরণে ও অপরিকল্পিত নগরায়নে অনেক মূল্যবান প্রাকৃতিক সম্পদ হারিয়ে যাচ্ছে কিংবা বিলুপ্ত হচ্ছে। এ বিষয়ে আমাদের অধিক সচেতন হতে হবে।”

এছাড়াও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরকারি কর্ম কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক জেড এন তাহমিদা বেগম, উপ উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক আমির হোসেন, উপ উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক নুরুল আলম।

দিনব্যাপী এই অনুষ্ঠানের মূল বিষয়বস্তু ছিলো ‘নভেল এ্যাপ্রোচ এ্যান্ড রিসেন্ট ডেভেলপমেন্ট ইন প্লান্ট সায়েন্স’। সম্মেলনে বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে ছিলো পোস্টার সেশন, প্ল্যানারি সেশন, সায়েন্টিফিক সেশন, বিজনেস সেশন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া