২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সারাদেশের হাসপাতালগুলোতে যন্ত্রপাতি ক্রয়ে দুর্নীতির বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে : সংসদে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

 সারাদেশের হাসপাতালগুলোতে যন্ত্রপাতি ক্রয়ে দুর্নীতির বিষয়ে তদন্ত করা হচ্ছে : সংসদে স্বাস্থ্যমন্ত্রী

সংসদ রিপোর্টার ॥ সারাদেশে হাসপাতালগুলোতে যন্ত্রপাতি ও ঔষধ ক্রয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়ে তদন্ত পরিচালনা করা হচ্ছে। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধিন স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, কেন্দ্রীয় ঔষধাগার ও মিমিউ এ্যান্ড টিসি প্রতিষ্ঠানসমূহের মাধ্যমে এই উচ্চ তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে টেবিলে উত্থাপিত প্রশ্নোত্তর পর্বে বিএনপি দলীয় সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদের প্রশ্নের লিখিত জবাবে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

মন্ত্রী জানান, হাসপাতালগুলোতে যন্ত্রপাতি ও ঔষধ ক্রয়ে অনিয়ম ও দুর্নীতির বিষয়ে শুধু তদন্ত কমিটি নয়, দুর্নীতি দমন কমিশন ও দুর্নীতি প্রতিরোধের জন্য নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছে। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মনিটরিং সেল সকল হাসপাতালের যন্ত্রপাতি ও ঔষধপত্র ক্রয় সংক্রান্ত কার্যক্রমসমূহ নিয়মিত মনিটরিং করছে। এর ফলে বর্তমানে অনিয়ম ও দুর্নীতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে।

সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য বেগম গ্লোরিয়া ঝর্ণা সরকারের প্রশ্নের লিখিত জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিক, চেম্বার ডাক্তারগণের রোগী দেখা বাবদ ফি আদায়ের বিষয়ে একটি নীতিমালা প্রণয়নের ব্যাপারে বর্তমান সরকারের চিন্তা ভাবনা রয়েছে। যোগ্যতা ও পদমর্যাদা অনুযায়ী জেনারেল প্র্যাকটিশনার থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক লেভেল পর্যন্ত সরকার কর্তৃক সবমহলে গ্রহণযোগ্য রোগী দেখার ভিজিটের হাজার নির্ধারণের পরিকল্পনা বর্তমান সরকারের রয়েছে। আশা করা যায়, ভবিষ্যতে তা বাস্তবায়নের কার্যক্রম শুরু করা সম্ভব হবে।

সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য বেগম শামসুন নাহারের প্রশ্নের লিকিত জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানান, টোব্যাকো এটলাস ২০১৮ অনুযায়ী, তামাকভিত্তিক বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশে প্রতিবছর এক লাখ ৬১ হাজারের অধিক লোক মৃত্যুবরণ করে।

তিনি জানান, অপর গবেষণায় বলা হয়েছে, বর্তমানে দেশে ১৫ লাখের অধিক প্রাপ্তবয়স্ক নারী ও পুরুষ তামাক সেবনের কারণে এবং ৬১ হাজারের অধিক শিশু পরোক্ষ ধুমপানের প্রভাবে প্রাণঘাতি বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত। এতে আরও বলা হয়, তামাকজনিত রোগব্যাধি ও অকাল মৃত্যুর কারণে বাংলাদেশ প্রতিবছর ৩০ হাজার ৫৭০ কোটি টাকা, যা ২০১৭-১৮ অর্থ বছরের জাতীয় আয়ের ১ দশমিক ৪ শতাংশ ব্যয় হয়ে থাকে।

নির্বাচিত সংবাদ