২০ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন চ্যাম্পিয়ন ফিলিস্তিনকে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বঙ্গবন্ধু শেখ মুরহমানের জন্মশতর্বাকী উপলক্ষে গত ১৫ জানুয়ারি থেকে ঢাকার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হয় বঙ্গবন্দু আন্তর্জাতিক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট। এতে দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে অংশ নেয় ৬ দেশ। ‘এ’ গ্রুপে ছিল স্বাগতিক বাংলাদেশ, ফিলিস্তিন ও শ্রীলঙ্কা। ‘বি’ গ্রুপে ছিল বুরুন্ডি, সিশেলস ও মরিশাস। শনিবার ছিল টুর্নামেন্টের শেষদিন। ফাইনালে বুরুন্ডিকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় ফিলিস্তিন। বিজয়ী ও বিজিত দলকে পুরস্কৃত করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ‘জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২০ সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে সমাপ্ত হওয়ায় আমি প্রতিযোগিতার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলকে আমার আন্তরিক অভিনন্দন জানাচ্ছি। সেই সঙ্গে আরও অভিনন্দন জানাই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী দলসমূহকে। আশা করছি আমাদের দেশকে আপনাদের ভাল লেগেছে। বাংলাদেশ খুবই সুন্দর একটি দেশ। আমি আশা করছি আপনারা বার বার আমাদের দেশে আসবেন এবং যখনই আমরা এই ধরনের টুর্নামেন্ট আয়োজন করব, আপনারা অংশ নিতে আসবেন। এমন দারুণ একটি টুর্নামেন্ট আয়োজন করায় আমি বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন, ফিফা, বাংলাদেশের দর্শক, ফুটবলার, আয়োজক সকলকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমি জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা জানাচ্ছি। জাতীয় চার নেতা ও ৩০ লাখ শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাই। বাংলাদেশকে জাতির পিতা স্বাধীন করে দিয়েছিলেন বলেই আজকে স্বাধীন দেশে আমরা এই টুর্নামেন্ট করতে পারছি। খেলাধুলার মধ্য দিয়ে দেশের মানুষ আরও সুনাগরিক হিসেবে গড়ে উঠুক। সেটাই আমরা চাই এবং সে লক্ষ্য নিয়ে ইতোমধ্যে আমরা সেই স্কুল থেকে বঙ্গমাতা ফুটবল টুর্নামেন্ট মেয়েদের জন্য, বঙ্গবন্ধু ফুটবল টুর্নামেন্ট আমাদের ছেলেদের জন্য প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে শুরু করেছি। এই খেলাটা বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা। এই খেলা আজকে মানুষের কাছে সবথেকে গ্রহণযোগ্যতা পাচ্ছে। কাজেই আমি মনে করি আমাদের সরকার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সবসময় খেলাধুলাকে গুরুত্ব দেই এবং আমরা চাই এই খেলাধুলার মধ্য দিয়ে আমাদের ছেলেমেয়েরা এগিয়ে যাক। আবারও আমি সবাইকে ধন্যবাদ জানাই। ফিলিস্তিন এই টুর্নামেন্টের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। তারা আমাদের বন্ধুপ্রতীম দেশ। তাদের অভিনন্দন জানাচ্ছি। বুরুন্ডিকেও আমি আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।’