২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নীলফামারী সীমান্তে তারকাটা বেড়ার সংলগ্ল এলাকায় চলাচলে সর্তকতা

নীলফামারী সীমান্তে তারকাটা বেড়ার সংলগ্ল এলাকায় চলাচলে  সর্তকতা

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ ভারতের সঙ্গে সীমান্ত এলাকার তারকাটা বেড়া সংলগ্ন এলাকায় সাধারন মানুষজনের চলাচল না করার জন্য সর্তকতা জারি করেছে নীলফামারীর জেলা প্রশাসন ও ৫৬ বিজিবি। আজ রবিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়। সুত্র মতে অবৈধ অনুপ্রবেশ, চোলাচালান কর্মকান্ড প্রতিহত করতে সীমান্ত এলাকায় নজরদারীও বৃদ্ধি করা হয়েছে।

জানা যায়, ওপারে ভারতের সীমান্ত এলাকায় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ টহল জোড়দার করা হয়। সীমান্ত এলাকায় ভারত রেড এ্যালার্ট জারি করেছে। ফলে বিভিন্ন সীমান্তে তারকাটা বেড়ার কাছাকাছি কোন মানুষ দেখলে বিএসএফ গুলি বর্ষন করছে। সম্পতি পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, লালমনিরহাট, নওগাঁ সহ বিভিন্ন সীমান্তে বিএসএফ এর গুলিতে বেশ কয়েকজন বাংলাদেশী নাগরিক প্রাণ হারায়। যার ফলে স্থানীয় প্রশাসন এই পদক্ষেপ করেছে।

সুত্র মতে ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস ঘিরে প্রতিবছরই ভারত সরকার সীমান্ত সিল করে থাকে। এবারো ভারতের উত্তরবঙ্গ ও পশ্চিমবঙ্গসহ বাংলাদেশ সীমান্ত সংলগ্ন রাজ্যগুলোর সড়ক ও রেলপথসহ বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্টে অতিরিক্ত সৈন্য ও নজরদারি বাড়ানো হয়েছে।

নীলফামারী জেলা প্রশাসক হাফিজুর রহমান চৌধুরী জানায়, নীলফামারীর প্রায় ৫০ কিলোমিটার সীমান্ত রয়েছে ডোমার ও ডিমলা উপজেলার। সীমান্তে চোরাচালনা, মানবপাচার, গরু পাচার প্রতিরোধে ভারত সীমান্তে কড়াকড়ি নজরদারী করছে। এপারেও বিজিবি রয়েছে সর্তক। যেহেতু সীমান্তে কড়কড়ি আরেপা চলছে সেখানে বাংলাদেশের নাগরিকদের সীমান্ত সংলগ্ন পথে বা তারাকাটা বেড়া এলাকা দিয়ে চলাচল না করার জন্য সর্তক করা হয়েছে। এ ছাড়া দেখা যায় সীমান্তে তারকাট বেড়া কেটে ফেলার ঘটনা ঘটছে। এ ধরনের ঘটনা যাতে না ঘটে । এ বিষয়ে সীমান্তবাসীকে সর্তক হতে হবে।বিষয়টি সীমান্ত এলাকার ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধি সহ সচেতন ব্যাক্তিদের সহযোগীতা কামনা করা হয়েছে। পাশাপাশি প্রশাসনের পক্ষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তারাও এ ব্যাপারে জনসচেতনার জন্য প্রচারনা করছে। জেলা প্রশাসক আরো জানান, সীমান্তে শান্তি,সুরক্ষা বজায় রাখার জন্য আমাদের প্রশাসনের জোড়ালো কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

অপর দিকে ভারত সীমান্তবর্তী গ্রামবাসী সহ এলাকাবাসীর প্রতি কোন কারণেই সীমান্ত এলাকায় ঘোরাফেরা ও চলাচল না করার জন্য পরামর্শ দিয়েছে বিজিবি। সীমান্তে নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা ব্যবস্থা গড়ে তুলতে ভারত সীমান্ত এলাকায় জোরদার করা হয়েছে গোয়েন্দা নজরদারি।

নীলফামারী ব্যাটালিয়ন (৫৬ বিজিবি) এর অধিনায়ক লেঃ কর্ণেল মোঃ মামুনুল হক জানান, আমরা চাইনা সীমান্তে কোন অপ্রীতিকরন ঘটনা সৃস্টি হউক। তাই সীমান্তবাসী কোন ভাবেই সীমান্ত এলাকার তারকাটা বেড়া সংলগ্ন এলাকায় যেন কেউ না যায় সে জন্য জোড়ালো ভাবে প্রচারনা করা হয়েছে ও হচ্ছে।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া