১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মৌলভীবাজারে আগুনে পুড়ে এক পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু

মৌলভীবাজারে আগুনে পুড়ে এক পরিবারের ৫ জনের মৃত্যু
  • লক্ষ্মীপুরে বসতবাড়িসহ ছয় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ভস্মীভূত

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ মৌলভীবাজার শহরে মঙ্গলবার সকালে ভয়াবহ অগ্নিকা-ে এক পরিবারের পাঁচজনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। অন্যদিকে, লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে আগুন লেগে বসতবাড়িসহ ছয়টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। এতে প্রায় অর্ধ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়। খবর নিজস্ব সংবাদদাতাদের।

জানা গেছে, মৌলভীবাজার শহরের এম সাইফুর রহমান সড়কের পিংকী সু স্টোর নামের একটি দোকানে সকাল সাড়ে দশটায় অগ্নিকা-ের সূত্রপাত হয়।

অগ্নিকা-ের সময় দোকানের শাটার বন্ধ ছিল। মুহূর্তের মধ্যে আগুন দোকান থেকে ছড়িয়ে পড়ে দোতলার আধাপাকা ঘরে। দোতলায় পরিবার নিয়ে বসবাস করতেন সুভাষ রায়।

এ সময় আগুনে পুড়ে মারা যান সুভাস রায় (৬০), তার মেয়ে প্রিয়া রায় (১৯) ও তার শ্যালকের স্ত্রী দীপা রায় (৩৫), দীপা রায়ের মেয়ে বৈশাখী রায় (পৌনে ৩ বছর) ও ভাইয়ের স্ত্রী দীপ্তি রায় (৪৫)।

এলাকাবাসী দুজনকে জীবিত উদ্ধার করে। মনা রায়কে প্রথমে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বলে জানান মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র ফজলুর রহমান। পরে তাকে আইসিইউ সম্পৃক্ত একটি বেসরকারী হাসপাতালে স্থানাস্তর করা হয়।

এদিকে নিহতদের দেহ সৎকারের জন্য জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে এক লাখ টাকা দেয়া হয় বলে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মল্লিকা দে জানান।

অগ্নিকা-ের খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স চারটি ইউনিট প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে একে একে উদ্ধার করে পাঁচটি লাশ।

মৌলভীবাজার ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স উপ-পরিচালক মোঃ আব্দুল্লাহ হারুন পাশা জানান, ঘরের ভেতরে একটি গ্যাস রাইজার ছিল। তাদের ধারণা বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে রাইজারে আগুন লাগে। তিনি জানান, দোতলায় এবং পেছনের বাসায় তারা থাকতেন। তাদের বের হওয়ার রাস্তা ছিল দোকানের ভেতর দিয়ে। সামনের দিকে আগুন লাগায় তারা বের হতে পারেননি।

মৌলভীবাজারের জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন জানান, ভয়াবহ অগ্নিকা-ে একই পরিবারের পাঁচজন পুড়ে মারা যাওয়ার ঘটনায় সাত সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া সুলতানাকে প্রধান করে সাত সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি সাত দিনের মধ্যে রিপোর্ট দেবে।

এদিকে এ ঘটনায় বন, পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন এমপি এক শোক বার্তায় নিহতদের আত্মার শান্তি কামনা করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

এদিকে সুভাষ রায়সহ তার পরিবার ও স্বজন মিলিয়ে পাঁচজনের মৃত্যুর ঘটনায় শোক প্রকাশ করে সাইফুর রহমান সড়কের ব্যবসায়ীরা তাদের দোকান বন্ধ রেখেছেন।

৬ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই ॥ লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে আগুনে পুড়ে ছাই হয়েছে বসতবাড়িসহ ছয় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। পৌর শহরের পোস্ট অফিস সংলগ্ন দেনায়েতপুর এলাকায় মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ৪টার দিকে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় বলে প্রাথমিকভাবে জানা যায়। এতে প্রায় অর্ধকোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান ক্ষতিগ্রস্তরা। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের লোকেরা এসে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন।

রেহেনা মেডিক্যাল হল, নুরুল ইসলামের চায়ের দোকান, দেনায়েতপুর যুবকল্যাণ সমিতির অফিস, রেহেনা মেডিক্যাল হলের স্বত্বাধিকারী ডাঃ নুরুল ইসলাম ভূঁইয়ার বসতঘর, ইসমাইল ও আবু তাহেরের বসতঘরসহ ৬টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা জানান। তারা আরও জানান, মঙ্গলবার রাত আনুমানিক ৪টার দিকে নুরুল ইসলামের চায়ের দোকানে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে এই অগ্নিকা-ের সূত্রপাত। এতে প্রায় অর্ধকোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে । সরকারীভাবে আর্থিক সহায়তা পেলে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা নতুন করে ব্যবসা শুরু করতে পারবেন বলে জানান। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ ও ভাইস চেয়ারম্যান মারুফ বিন জাকারিয়া।

নির্বাচিত সংবাদ