১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঢাবির ৬৭ শিক্ষার্থীকে স্থায়ী ও ২২ জনকে সাময়িক বহিষ্কার

  • ডিজিটাল জলিয়াতি

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক পর্যায়ে ভর্তি পরীক্ষায় ডিজিটাল জালিয়াতি ও অবৈধ উপায়ে ভর্তির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ৬৩ শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার করেছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া অবৈধ অস্ত্র ও মাদকের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আরও চার শিক্ষার্থীকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সিন্ডিকেটের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সভায় ডিজিটাল জালিয়াতি ও অবৈধ উপায়ে ভর্তির অভিযোগে আরও নয় শিক্ষার্থী এবং ছিনতাইয়ে জড়িত থাকার অভিযোগে ১৩ শিক্ষার্থীকে সাময়িকভাবে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাদের কেন স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না, তা জানতে চেয়ে সাত কার্যদিবসের মধ্যে কারণ দর্শানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

এদিকে গত ২৫ অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগার ও টিএসসিতে হামলার ঘটনায় দুই শিক্ষার্থীকে ছয় মাসের জন্য বহিষ্কার করা হয়েছে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ পরীক্ষায় বিভিন্ন সময়ে অসদুপায় অবলম্বনের অভিযোগে ৩০ জন শিক্ষার্থীকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তি দেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস ও জালিয়াতির সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে গত বছরের ২৩ জুন বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮৭ জন শিক্ষার্থীসহ ১২৫ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় সিআইডি। ৮৭ জনের মধ্যে ১৫ জনকে আগেই আজীবন বহিষ্কার করা হয়েছিল। মঙ্গলবারের সিন্ডিকেট সভায় বহিষ্কৃত ৬৩ জন জালিয়াতির ঘটনায় এ নিয়ে ৭৮ জন শিক্ষার্থীকে আজীবন বহিষ্কার করা হলো।

স্থায়ীভাবে বহিষ্কৃত শিক্ষার্থীদের এর আগে সাময়িক বহিষ্কার করে তাদের কারণ দর্শানোর নোটিস দিয়েছিল বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তাদের স্থায়ীভাবে কেন বহিষ্কার করা হবে না তা জানাতে সাত দিন সময় দেয়া হয়েছিল। জবাবের ভিত্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা পরিষদের সুপারিশ অনুযায়ী তাদের স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করে সিন্ডিকেট।

অন্যদিকে, গত বছরের ৮ অক্টোবর রাতে মহসীন হলের ১২১ নম্বর রুম থেকে পিস্তল, বটি, সিসি ক্যামেরা, হাতুড়ি, লাঠিসহ আটক করা চার ছাত্রলীগ নেতাকে স্থায়ী বহিষ্কারের সুপারিশ করে প্রক্টরিয়াল বডি। আজ তাদের স্থায়ী বহিষ্কার করা হলো।

নির্বাচিত সংবাদ