২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রত্যেকের জীবনে নৈতিকতা ও সততার চর্চা রাখতে হবে এবং অর্পিত দায়িত্বকে ধারণ করতে হবে-গণপূর্ত মন্ত্রী

প্রত্যেকের জীবনে নৈতিকতা ও সততার চর্চা রাখতে হবে এবং অর্পিত দায়িত্বকে ধারণ করতে হবে-গণপূর্ত মন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম এমপি বলেছেন, প্রত্যেকের জীবনে নৈতিকতা ও সততার চর্চা রাখতে হবে এবং নিজের উপর অর্পিত দায়িত্বকে ধারণ করতে হবে। যার যার জায়গা থেকে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করতে হবে। বুধবার সচিবালয়ে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে মন্ত্রণালয়ের শুদ্ধাচার পুরস্কার ২০১৮-২০১৯ প্রদান অনুষ্ঠানে মন্ত্রণালয় ও আওতাধীন দপ্তর-সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উদ্দেশে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় গ্রহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ শহীদ উল্লা খন্দকার, আতরিক্ত সচিব মোঃ ইয়াকুব আলী পাটওয়ারী, ড. মোঃ আফজাল হোসেনসহ মন্ত্রণালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ ও মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন দপ্তর-সংস্থা প্রধানগণ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

পূর্তমন্ত্রী বলেন, কর্মের মধ্যে অমরত্ব লাভ করতে হয়। এজন্য সৃজনশীলতাকে বড় আকারে ধারণ করতে হবে। জীবনের শেষ মূহুর্ত পর্যন্ত কাজ করে যেতে হবে। প্রত্যেকের জীবনে নৈতিকতা ও সততার চর্চা থাকতে হবে। মাইন্ডসেট আপ পরিবর্তন করে জীবনকে কর্মস্পৃহার মধ্যে রাখতে হবে। জীবনকে যাপন করতে হবে প্রাঞ্জলভাবে। পরে মন্ত্রী ২০১৮-২০১৯ সালে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রাপ্ত মন্ত্রণালয়ের অফিস সহকারী মোঃ রফিকুল ইসলাম, মন্ত্রণালয়ের সাবেক উপসচিব ও বর্তমানে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব মোসাঃ সুরাইয়া বেগম এবং স্থাপত্য অধিদপ্তরের সাবেক প্রধান স্থপতি কাজী গোলাম নাসিরের হাতে পুরস্কারের সনদপত্র ও এক মাসের মূল বেতনের সমপরিমাণ অর্থ তুলে দেন। এর আগে মন্ত্রী ২০১৯-২০২০ সালে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচিতে অন্তর্ভূক্ত উন্নয়ন প্রকল্পসমূহের ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত অগ্রগতি পর্যালোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন।

নির্বাচিত সংবাদ