২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফোল্ডএবল ডিভাইসে অ্যাপলের আরেক পেটেন্ট

 ফোল্ডএবল ডিভাইসে অ্যাপলের আরেক পেটেন্ট

অনলাইন ডেস্ক ॥ আইফোনের ফোল্ডএবল সংস্করণ আনার পরিকল্পনা নিয়ে যথেষ্টই মাথা খাটাচ্ছে অ্যাপল, অন্তত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পেটেন্টের জন্য করা প্রতিষ্ঠানের আরেকটি আবেদন থেকে সে ধারণাই মিলছে।

পেটেন্ট নকশায় ডিভাইসটিতে উদ্ভাবনী কব্জার ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। নতুন এই কব্জার কারণে পর্দায় ভাঁজ পড়বে না বলে ধারণা করা হচ্ছে-- খবর বিবিসি’র।

পেটেন্ট থেকে ধারণা করা হচ্ছে অ্যাপলের ডিভাইসটি পুরোপুরি ভাঁজ হবে না। ভেতরে কিছুটা ফাঁকা জায়গা থেকে যাবে, যা পর্দায় ভাঁজ ফেলবে না।

২০১৯ সালে ফোল্ডএবল স্মার্টফোন এনেছে হুয়াওয়ে, স্যামসাং এবং লেনোভো।

“ঝুঁকি এড়িয়ে প্রযুক্তির দিকে এগোনোর ইতিহাস রয়েছে অ্যাপলের এবং প্রতিষ্ঠানটি তখনই বাজারে নিজেদের পণ্য আনে যখন তারা মনে করে কোনো প্রযুক্তি যথেষ্ট পরিণত হয়েছে বা এটি এমনভাবে ব্যবহার করা যাবে যা পণ্যে অর্থবহ পরিবর্তন আনবে,” বলেন বিশ্লেষক বেন উড।

“সন্দেহ ছিলো কয়েক বছর ধরে গোপনে হয়তো নমনীয় পর্দা নিয়ে কাজ করছে অ্যাপল এবং এটা অবাক হওয়ার মতো কোনো বিষয় নয় যে তারা ব্যতিক্রমী কিছু করতে চাইছে।”

ফোল্ডএবল ডিভাইস নিয়ে পাঁচ বছরে আরও বেশ কিছু পেটেন্ট করেছে প্রযুক্তি জায়ান্ট মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি।

কব্জার নকশার কারণে “অ্যাপলের ডিভাইসটি ভাঁজ করলে প্রথম ও দ্বিতীয় অংশের মাঝে যথেষ্ট ফাঁকা থাকবে,” যোগ করেন বেন।

ফোল্ডএবল ডিভাইসের পর্দায় ভাঁজ ফেলা বন্ধ করতে প্রথম পদক্ষেপ দেখা গেছে মোটোরলা রেজর ফোনে। উদ্ভাবনী নকশার কারণে ডিভাইসটির পর্দা কাপড়ের মতো সব কোণা থেকে টান দিয়ে সমতল রাখা হয়।

এরপরও অনেক পর্যালোচকের দাবি ডিভাইসটি বন্ধ করা হলে পর্দায় ভাঁজের দাগ আসে।

চলতি মাসেই স্যামসাংয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে সেপ্টেম্বর থেকে শুরু করে প্রায় চার লাখ ফোল্ডএবল গ্যালাক্সি ফোল্ড বিক্রি করা হয়েছে। যদিও প্রতিষ্ঠানের প্রাথমিক লক্ষ্য ছিলো পাঁচ লাখের বেশি। ফেব্রুয়ারিতে নতুন আরেকটি ফোল্ডএবল স্মার্টফোন উন্মোচন করতে পারে প্রতিষ্ঠানটি।

সামনের সপ্তাহে স্পেনের বার্সেলোনায় অনুষ্ঠিতব্য মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানও ফোল্ডএবল স্মার্টফোন উন্মোচন করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

নির্বাচিত সংবাদ