২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিশ্বকাপ বিজয়ীদের বরণ করে নিতে প্রস্তুত বিসিবি

বিশ্বকাপ বিজয়ীদের বরণ করে নিতে প্রস্তুত বিসিবি

অনলাইন রিপোর্টার ॥ ভারতকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জিতে ইতিহাস গড়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। আকবর আলীদের এই অর্জনে গর্বিত গোটা জাতি। স্বপ্নের সোনালি ট্রফি নিয়ে আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা পরই বাংলাদেশের মাটিতে পা রাখবে বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। পুরো দল আসবে বুধবার বিকাল ৪টা ৫৫ মিনিটে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে। তাদের বরণ করতে আয়োজনের কমতি রাখছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

বিমান বন্দর থেকেই সেই প্রস্তুতি সেরে রেখেছে বিসিবি। চ্যাম্পিয়ন দলকে বহন করা বিমানটি মাটি ছোঁয়ার পর অল্প পরিসরে সংবর্ধনার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। ওয়াটার স্যালুটের মাধ্যমে প্রথম অভ্যর্থনা জানানো হবে পুরো দলকে। ওয়াটার স্যালুটে অবতরণ করা বিমানের দুই পাশ থেকে অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র দিয়ে ছিটানো হবে পানি।

বিমানবন্দরে কোন এয়ারলাইন্স ও বিমানের প্রথম এবং শেষ যাত্রায় কিংবা বিমানের কোনও কর্মকর্তার অবসরের সময় দেওয়া হয় বিশেষ এই স্যালুট। তবে দেশের ক্রীড়াঙ্গনে প্রথমবারের মতো এমন ঘটনা ঘটতে চলেছে।

ওয়াটার স্যালুটের পর বিমানবন্দরে অপেক্ষায় থাকা বিসিবি সভাপতিসহ অন্যান্য বোর্ড পরিচালকদের মাধ্যমে ফুলেল শুভেচ্ছা দেওয়া হবে ক্রিকেটারদের। সে সময় উপস্থিত থাকবেন যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারাও। এরপর বিমানবন্দরেই কাটা হবে কেক। এই পর্ব শেষ করে বিমাবন্দর থেকে সোজা বিসিবিতে যাবেন আকবররা।

এরই মধ্যে অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটারদের বরণ করে নিতে সাজ সাজ রব মিরপুর হোম অব ক্রিকেটে। শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের দুই নম্বর গেট দিয়ে ঢুকতেই চোখে পড়বে আকবর আলীদের ছবি দিয়ে বানানো বড় ব্যানার। ওয়ার্ল্ড চ্যাম্পিয়ন্স লেখা এই ব্যানারে দেখা যাচ্ছে আকবর আলীদের ট্রফি হাতে উল্লাসের মূহূর্ত। মঙ্গলবার সকালে এই ব্যানারগুলো টানানো হয়েছে। এছাড়া স্টেডিয়ামের সামনের অংশ মরিচ বাতিতে সাজানো হয়েছে।

সাজ সাজ রব এখন মিরপুর স্টেডিয়ামে।

বিমাববন্দর পর্ব শেষে করে আকবরা চলে আসবেন হোম অব ক্রিকেটে। সেখানে তাদের জন্য সামান্য আয়োজনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। আয়োজন শেষে যত দ্রুত সম্ভব তাদের পরিবারের কাছে পাঠানোর ব্যবস্থা করবে বিসিবি। এর আগে অবশ্য সংবাদ সম্মেলনে অংশ নেবেন অধিনায়ক কোচসহ বিসিবি প্রধান। ঢাকার বাইরের ক্রিকেটাররা রাত কাটাবেন একাডেমি ভবনে। অন্যদিকে যারা ঢাকায় থাকেন, তারা চলে যাবেন পরিবারের কাছে। তার আগে ডিনারে অংশ নেবে বিশ্বজয়ী দল।

এ প্রসঙ্গে প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন সংবাদ মাধ্যমে বলেছেন, ‘অনূর্ধ্ব-১৯ দল বুধবার বিকাল ৫ টার দিকে এসে পৌঁছাবে। ওভাবেই পরিকল্পনা করা হচ্ছে, যেহেতু অনেকদিন ধরে ছেলেগুলো দেশের বাইরে ছিল, তো সবকিছু বিবেচনা করে আমরা যতটুকু সম্ভব স্বল্প সময়ের মধ্যে কিছু ব্যবস্থা করেছি। বিমানবন্দরে অভ্যর্থনা জানিয়ে বোর্ডে নিয়ে আসার পর, যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তাদের পরিবারের কাছে পাঠানো হবে।'

রবিবার ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ।দেশবাসিকে আনন্দে ভাসানোর পুরস্কার হিসেবে আকবর-রাকিবুলদের সরকারের পক্ষ থেকে দেওয়া হবে গণসংবর্ধনা। ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় অর্জন, গৌরব বয়ে আনা খেলোয়াড়দের আর কী পুরস্কার দেওয়া হবে, সেটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আলোচনার পর জানাবেন নাজমুল হাসান। সোমবার এমনটাই জানিয়েছিলেন বিসিবি প্রধান।

নির্বাচিত সংবাদ